চকরিয়া পৌরশহরের ফুটপাত থেকে শতাধিক ভাসমান দোকান ও পরিবহন কাউন্টার উচ্ছেদ

Chakaria-Picture-16-09-2019-1.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া(১৬ সেপ্টেম্বর) :: কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া পৌরশহরে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ফুটপাত দখল করে বসানো অন্তত শতাধিক ভাসমান দোকান ও অবৈধ পরিবহন কাউন্টার উচ্ছেদ করেছে।

এসময় কয়েকটি ভাসমান দোকানকে চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে চকরিয়া পৌরশহরের চিরিঙ্গা সোসাইটিস্থ বাণিজ্যিক এলাকায় উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) তানভীর হোসেন।

অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করেন চকরিয়া পৌরসভার সচিব মাসউদ মোরশেদ, চকরিয়া থানার এসআই জাকির হোসেন, ভুমি অফিসের নাজির মিলন বড়ুয়া, পৌরসভার স্যানিটারি ইন্সপেক্টর হায়দার আলী, সুপারভাইজার নাজিমুদ্দিন প্রমুখ।

সরেজমিনে জানা গেছে, পৌরশহরের পুরাতন বাস স্টেশন চিরিঙ্গাস্থ বনফুলের সামনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে দূরপাল¬ার গাড়িগুলো যাত্রী ওঠানামায় ব্যস্ত থাকে। পাশাপাশি চকরিয়া সার্ভিস নামের এক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বনফুলের সামনে অবৈধ কাউন্টার খুলে বসেছে।

অনুরূপভাবে শহরের এনসিসি ব্যংকের নিচে চিরিঙ্গা-মগনামা-বারবাকিয়া-বাঘগুজারা সড়কের গাড়ির কাউন্টার, ছিদ্দিক মার্কেট, সিটি সেন্টার, আনোয়ার শপিং কমপে¬ক্স, চকরিয়া শপিং কমপে¬ক্স ও জনতা শপিং সেন্টারের সামনে সড়কের পাশে ট্রাক, মিনিট্রাক, পিকআপ, জিপ ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা প্রতিদিন অবৈধভাবে পার্কিং করে রাখা হয়।

অপরদিকে আনোয়ার শপিং কমপে¬ক্স মার্কেটের সামনে কাকারা-মানিকপুর সড়কের কাউন্টার, ইসলামি ব্যাংকের সামনে কৈয়ারবিল সড়কের সিএনজি অটোরিকশা পার্কিং ও কাজী মার্কেটের সামনে প্রাইভেট গাড়ি নোহা, কার ও জিপগাড়ির পার্কিং, বাবুল শপিং সেন্টারের সামনে ফাঁসিয়াখালী-ডুলাহাজারা-খুটাখালী সড়কের সিএনজি অটোরিকশা, টমটম, মাহিন্দ্রা ও জিপগাড়ির পার্কিং, চকরিয়া উপজেলা হাসপাতাল সড়কের মুখে চিরিঙ্গা-বদরখালী সড়কে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, সাহারবিল-বদরখালী সড়কে টমটম, মাহিন্দ্রা গাড়ির কাউন্টার রয়েছে।

একইভাবে চকরিয়া পৌরশহরের থানার রাস্তার মাথা এলাকায় চিরিঙ্গা-বদরখালী সড়কের জিপ, বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার কাউন্টার রয়েছে। এসব পরিবহন কাউন্টারগুলোর কারণেই এখানে সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ যানজটের। পাশাপাশি মহাসড়কের পাশে ফুটপাতের ভাসমান দোকানে ক্রেতা-বিক্রেতারা দাঁড়িয়ে বেচাবিক্রি করার কারণে প্রতিদিনই চলাচলের ক্ষেত্রে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছেন জনসাধারণ।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী। তিনি বলেন, চকরিয়া পৌরশহরকে যানজটমুক্ত করার লক্ষ্যে আদালতের উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়েছে।

অভিযানের শুরুতে সোমবার পৌরশহরের বাণিজ্যিক নগরীতে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন ২০০৯ বিভিন্ন ধারা আলোকে সড়ক মহাসড়কে অবৈধ দোকান স্থাপন ও পার্কিং করার অপরাধে বিভিন্ন দোকানিকে জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি অবৈধ স্থাপনা নিজ দায়িত্বে সরিয়ে ফেলতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, জনদুর্ভোগ লাগবে উচ্ছেদ অভিযানের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এইজন্য পৌরসভার পক্ষ হতে সংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri