পেকুয়ায় অপহৃত প্রবাসী শিশুর হাত বাঁধা লাশ উদ্ধার : গ্রেফ্তার-২

pekua-19.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক(১৯ অক্টোবর) :: অপহরণের দুই দিন পর কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় হাত বাঁধা অবস্থায় এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের মগঘোনা এলাকা থেকে শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে শিশুটি অপহৃত হয়।

নিহত শিশুটির নাম মো. আরাফাত (৮)। সে উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের কাদিমাকাটা এলাকার ওমান প্রবাসী রুহুল কাদেরের ছেলে। স্থানীয় একটি মাদ্রাসার নুরানি শাখায় প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল সে।

এ ঘটনায় শিশুটির খালাতো ভাই (১৬) ও তার সহযোগী মো. মানিককে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পেকুয়া থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বিকেল চারটার দিকে বাড়ির পাশে খেলছিল আরাফাত। এ সময় তার খালাতো ভাই ও মানিক মিলে আরাফাতকে অপহরণ করে। অপহরণের পর শিশুটির খালা গোলতাজ বেগমের কাছে ফোন করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

শিশুটির পরিবার অপহরণের মামলা করলে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে শিশুটির খালাতো ভাই ও শুক্রবার সকালে মানিককে গ্রেপ্তার করে। প্রথমে তারা বলে, কক্সবাজারের এক যুবকের কাছে আরাফাতকে রাখা হয়েছে। কিন্তু দুই দিন ধরে খুঁজেও আরাফাতের কোনো সন্ধান পায়নি পুলিশ।

একপর্যায়ে তারা দুজন স্বীকার করে, মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরই আরাফাতকে মগঘোনা এলাকায় নিয়ে হাত বেঁধে গলা টিপে হত্যা করে লাশ একটি জমিতে ফেলে দেওয়া হয়। পরে তাঁদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শনিবার রাতে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আজম বলেন, এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri