টেকনাফে জার্মান রাষ্ট্রদূতের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও সামুদ্রিক লবন পানির শোধনাগার উদ্বোধন

received_569641553780944.jpeg

কক্সবাংলা রিপোর্ট(২৩ অক্টোবর) :: কক্সবাজারের টেকনাফে হোটেল নেটং হল রুমে জার্মান সরকারের সহযোগিতায় বিশাল একটি সামুদ্রিক লবন পানির শোধনাগার নির্মান কাজের উদ্বোধন করতে বুধবার সকাল ১১ টার দিকে বাংলাদেশের নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত মতবিনিময় সভা করেন।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও স্থানীয় সুশীল সমাজের ব্যক্তিদের সঙ্গে নয়াপাড়া ২৬ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্থানীয় ও রোহিঙ্গা নাগরিকদের সুবিধার জন্য একটি বিশাল সামুদ্রিক লবন পানি শোধনাগারটি জার্মান সরকারের সহায়তায় নির্মান করেছে নবলোক। সেই বিষয়ে বিশাল আয়োজনের মাধ্যমে উপস্থিত সকলের কাছে তুলে ধরেন।

মতবিনিময় শেষে দুপুর দিকে বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত মি. পিটার ফারেন হুলস টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প ২৬ নং পরিদর্শন করেন। এর পর ক্যাম্পে স্থানীয় ও রোহিঙ্গা নাগরিকদের সুবিধাত্বে সামুদ্রি লবন পানি শোধনাগার উদ্বোধন করেন।

এ সময় তার সফরসঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সরকারের এনজিও বিষয়ক ব্যুরো প্রধান কে এম আবদুস সালাম, শরণার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মাহাবুব আলম তালুকদার, কক্সবাজার ক্যাম্প ইনচার্জ মো. খালিদ হোসেন, আব্দুল মন্নান, দাতা সংস্থার প্রতিনিধি তৌমির বওসিভা, নবলোক সংস্থার নির্বাহী পরিচালক কাজী রাজীব ইকবালসহ বিভিন্ন সরকারি, আন্তর্জাতিক এবং দেশীয় সংস্থার প্রতিনিধি বৃন্দ।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও সামুদ্রিক লবন পানি শোধনাগার উদ্বোধন শেষে তিনি বিকালের দিকে কক্সবাজার উদ্দ্যােশ্যে চলে যায়।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri