কক্সবাজারে স্বরণ সভায় আমিনুল ইসলাম : ক্ষমতা, লোভ এড. আহমদ হোসাইনকে স্পর্শ করতে পারেনি

picture-newwww.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি(৮ নভেম্বর) :: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলা শাখার সাবেক সভাপতি এডভোকেট এ.কে. আহমদ হোসাইনের ১ম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জননেতা আমিনুল ইসলাম বলেন, এডভোকেট আহমদ হোসাইন ছিলেন একজন প্রকৃত নিরহংকার মুজিব সৈনিক। তিনি সদালাপী, মিশুক, কর্মী বান্ধন নেতা ছিলেন।

কক্সবাজারের কোন মহল তাঁর কোন কর্মকান্ড নিয়ে কোনদিন সমালোচনা করতে পারেননি। তিনি যে কোন বিষয়ে তাঁর কাছে আসলে কোন মানুষকে ফেরৎ দেননি। তাঁর সময় জ্ঞান ছিল প্রশংসনীয়।

মুক্তিযোদ্ধার অন্যতম সংগঠক আহমদ হোসাইন কর্মীদের সুখ, দুঃখের বিশ্বস্ত সাথী ছিলেন। ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগ পরবর্তীতে যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ করে সর্বশেষ জেরা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ছিলেন। বণার্ঢ্য রাজনৈতিক জীবনে তিনি স্বৈরাচারী সরকারের বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক আন্দোলন করতে গিয়ে কারাবরণ করেছিলেন।

তিনি বেঁচে না থাকলেও তাঁর আদর্শ, ত্যাগ ভবিষ্যৎ আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের যুগ যুগ ধরে অনুপ্রেরণা যোগাবে। দীর্ঘ দিন ক্ষমতাসীন দলের সভাপতি থাকলেও ক্ষমতা, লোভ, লালসা তাকে স্পর্শ করতে পারেনি। তাই তিনি সকলের কাছে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হিসাবে থাকবেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তাফার সভাপতিত্বে শহীদ দৌলত ময়দানে অনুষ্ঠিত বিকাল ৩ টায় স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, সাবেক ছাত্রনেতা শাহাজাদা মহিউদ্দিন, আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, আবদুর রহমান বদি, কামাল হোসেন চৌধুরী, এডভোকেট রনজিত দাশ, নজিবুল ইসলাম, কায়সারুল হক জুয়েল, হামিদুল হক চৌধুরী, বাবু উজ্জ্বল কর, ডঃ নুরুল আবছার, হামিদা তাহের, সোহেল আহমদ বাহাদুর, সাখাওয়াত হোসাইন, সভার শুরুতেই পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মৌলানা নুুরুল আলম সরকার। সভা পরিচালনা করেন উপ-প্রচার সম্পাদক এম.এ. মনজুর।

দিন ব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যে সকাল ৮টায় মরহুমের কবর জিয়ারত, সকাল ৯টায় খতমে কোরআন, সকাল ১০টায় প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করা হয়।

কর্মসূচী সমূহে উপস্থিত ছিলেন, অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন, শাহ আলম চৌধুরী রাজা, বদিউল আলম সিকদার, এম. আজিজুর রহমান, মাহবুবুল হক মুকুল, মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, এড. আব্বাস উদ্দিন চৌধুরী, ইউনুছ বাঙালী, ইঞ্জিনিয়ার বদিউল আলম, এড. তাপস রক্ষিত, খালেদ মোঃ মিথুন, কাজী মোস্তাক আহমদ শামীম, আবু তাহের আজাদ, মোহাং হোসেন বি.এ, আবু হেনা মোস্তফা কামাল, মিজানুর রহমান, জিএম কাসেম, এড. সুলতানুল আলম, মাহমুদুল হক চৌধুরী, আয়েশা সিরাজ, তাহমিনা চৌধুরী লুনা, নুরুল আজিম কনক, এড. নাসরিন সুলতানা লীনা, মোর্শেদ হোসেন তানিম, জাহেদুল ইসলাম লিটু, আতিক উদ্দিন চৌধুরী, নাজমুল হোসেন নাজিম, ডাঃ পরিমল দাশ, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, আসিফুল মওলা, শাহ নেওয়াজ চৌধুরী, হাসান মেহেদী রহমান, শুভ দত্ত বড়–য়া, আশরাফ জাহান কাজল, ফিরোজা আমজাদ, আইরিন আকতার, ইফতেখার উদ্দিন পুতু, ডালিম বড়–য়া, এ.বি. ছিদ্দিক খোকন, ওসমান গনি টুলু, দুলাল দাশ, আব্দু রহমান, এড. একরামুল হুদা, মাহবুবুর রহমান, রাসেল চৌধুরী, জহিরুল কাদের, জাফর আলম, মেজবা উদ্দিন, শাহেনা আকতার পাখী, ইয়াছমিন আকতার, দীপক দাশ, নজরুল ইসলাম, সাজেদুল করিম, শেখ কামাল, তাজ উদ্দিন, ওয়াহিদ মুরাদ সুমন, এড. শাহেদ হোসাইন, মোশারফ হোসাইন, কামরুল হোসাইন।

এছাড়াও আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের শত শত নেতাকর্মী স্বরণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri