বাংলাদেশের উপকূলে কখন আঘাত হানবে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল ?

Cyclone-Bulbul850-1.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৮ নভেম্বর) :: শনিবার সন্ধ্যা থেকে মধ্য রাতে ঘূণিঝড় বুলবুল বাংলাদেশের খুলনা-বরিশাল অঞ্চলে আঘাত আনতে পারে। এক্ষেত্রে প্রথম আঘাত আনতে পারে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায়। তবে উপকূলে আঘাত হানার আগে বুলবুল কিছুটা দুর্বল হয়ে যেতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়টি বর্তমানে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের খুলনা ও বরিশাল উপকূলের দিকে মুখ করে আছে। এটি শনিবার সন্ধ্যা থেকে মধ্য রাতে উপকূলে আঘাত হানতে পারে।

অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে সরকার। ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট ২২টি মন্ত্রলণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ জেলা-উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ঘূর্ণিঝড়ের বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে শুক্রবার বিকেলে জানায়, আগামী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল, চট্রগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী ভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী বৃষ্টি পাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া দক্ষিণাঞ্চলে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল শুক্রবার দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণে পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণে পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৫৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৫৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরও ঘণীভূত হয়ে উত্তর/উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. আবদুর রহমান খান চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ বর্তমানে পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে সমুদ্র বন্দরসমূহ, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা দমকা ও ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

তিনি বলেন: ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৭৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটে সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে চার নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ হয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

শনিবার ঘূণিঝড় বুলবুল পশ্চিমবঙ্গেও আঘাত আনার সম্ভাবনা আছে।কলকাতা থেকে ৭৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। এই ঘুর্ণিঝড়ের প্রভাবে ইতোমধ্যে ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা হয়েছে। ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের আবহাওয়া বিভাগ বলছে, গতিপথ পরিবর্তন করে স্থলভাগে আছড়ে পড়বে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। রোববার দুপুরের আগেই পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ থেকে বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মাঝে স্থলভাগের প্রবেশ করবে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। এর আগে শুক্রবার শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় থেকে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে ‘বুলবুল’।

শুক্রবার বিকেলে সচিবালয়ে ঘুর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মনিটরিং সেলের সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. এনামুর রহমান বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে সংশ্লিষ্ট ২২টি মন্ত্রলণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ জেলা-উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

এরইমধ্যে সাইক্লোন সেন্টারসহ উপকূলের আশ্রয় কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি সাইক্লোন সেন্টারে দুই হাজার প্যাকেট করে শুকনো খাবার ও নগদ পাঁচ লাখ করে টাকা পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।সাতটি জেলাকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri