ইরানে ৫ হাজার ৩০০ কোটি ব্যারেলের নতুন তেলক্ষেত্র আবিষ্কার

iran_discovers_new_oil_deposits.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১০ নভেম্বর) :: ইরানে নতুন একটি তেলক্ষেত্র আবিষ্কার করা হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, এই নতুন তেলক্ষেত্রে ৫ হাজার ৩০০ কোটি ব্যারেল অপরিশোধিত তেলের মজুত আছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশে খুজেস্তানে এই তেলক্ষেত্র আবিষ্কৃত হয়েছে। প্রায় ২ হাজার ৪০০ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে ক্ষেত্রটি অবস্থিত।

রুহানি বলেন, আমরা ৫ হাজার ৩০০ কোটি ব্যারেলের একটি তেলক্ষেত্রের সন্ধান পেয়েছি। এটি অনেক বড় তেলক্ষেত্র, যা বোস্তান থেকে ওমিডিয়েহ পর্যন্ত ২ হাজার ৪০০ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিস্তৃত। তেলের স্তরের গভীরতা ২৬২ ফুট।

ইরানের প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ইরানের তেল উত্তোলন যদি মাত্র ১ শতাংশ বৃদ্ধি পায় তাহলে তেলের রাজস্ব বেড়ে দাঁড়াবে ৩২ বিলিয়ন ডলার।

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর বিদেশে তেল বিক্রিতে বাধার মুখে পড়েছে ইরান। ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে ছয় পরাশক্তির স্বাক্ষরিত পারমাণবিক চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্র এই নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

মধ্যাঞ্চলীয় শহর ইয়াজাদে দেওয়া ভাষণে রুহানি যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করে বলেন, হোয়াইট হাউজকে আমি বলছি, আপনার যখন ইরানের তেল, ইরানের শ্রমিক ও প্রকৌশলীদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন আমরা তখনও ৫ হাজার ৩০০ কোটি ব্যারেলের তেলক্ষেত্র আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছি।

যুক্তরাষ্ট্রের বার্তা সংস্থা এপি’র খবরে বলা হয়েছে, নতুন আবিষ্কৃত তেলক্ষেত্রটি ইরানের দ্বিতীয় বৃহত্তম তেলক্ষেত্র। আহবাজ তেলক্ষেত্রে ৬৫ বিলিয়ন ব্যারেল তেল রয়েছে।

বিশ্বের অন্যতম তেল উৎপাদনকারী দেশ ইরান। প্রতি বছর তাদের বিলিয়ন ডলার আয় হয় তেল রফতানি করে।

রুহানি বলেছেন, ইরানের তেলের মজুত ১৫০ বিলিয়ন ব্যারেল।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri