উখিয়ায় মাসিক সমন্বয় সভায় ইউএনও : কলেজ বাস্তবায়নে এনজিওদের সহযোগীতা চাই

u20.jpg

মোস‌লেহ উদ্দিন,উখিয়া(২০ নে‌ভেম্বর) :: কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের মধ্যস্থল পালংখালীর ময়নারঘোনা এলাকায় একটি কলেজ বাস্তবায়নে এনজিও সংস্থাদের সার্বিক সহযোগীতা কামনা করেছেন উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী।

তিনি বলেন, সুনির্দিষ্ট এলাকায় একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হলে অত্র এলাকার গরীব মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা পড়ালেখায় আরো উৎসাহী হবে। বৃদ্ধি পাবে শিক্ষার হার।

বুধবার (২০ নে‌ভেম্বর) সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্টিত এনজিওদের সমন্বয় সভায় উপস্থিত এনজিও প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে ইউএনও মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী আরো বলেন, উখিয়া কলেজ থেকে হ্নীলা কলজের মধ্যস্থল কোন কলেজ না থাকায় ওইসব এলাকা মাধ্যমিক স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা দুরতে্বর কারণে পড়ালেখা থেকে ঝড়ে পড়ছে।

স্বছল পরিবারের ছে‌লেরা বিভিন উচ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে সক্ষম হলেও হতদরিদ্রদের মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা সে সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

ইউএনও আরো বলেন, উখিয়ার ২৪টি ক্যাম্প যেসব এনজিওরা কাজ করছে তারা আন্তরিক হলে পালংখালী ময়নারঘোনায় পূর্ব নির্ধারিত খাস জমিতে ৪/৫টি কক্ষ বিশিষ্ট একটি স্থাপনা নির্মাণ করে দিতে পারেন।

পাশাপাশি এনজিও কর্মকর্তারা ওই কলেজে ভর্তি কত ছাত্রছাত্রীদের পাঠদানের জন্য একটি সময় ব্যয় করতে পারেন। এভাব একটি কলেজ পূর্ণাঙ্গভাবে গড়ে উঠতে সক্ষম হবে।

পালংখালী কলেজ বাস্তবায়নের ব্যাপারে আগ্রহ জানতে চাইলে ইউএনও বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী কলেজ প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে খুবই আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

তার আন্তরিকতায় পালংখালী ময়নারঘোনা এলাকায় একটি কলেজ প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে উদ্যােগ গ্রহণ করা হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের জন্য প্রাথমিক পর্যায় একটি কলেজ গর্ভনিং বডি গঠন করা হয়েছে যা এখনো আত্মপ্রকাশ হয়নি বলে সাংবাদিকদের জানান।

এনজিওদের প্রতি আবারো দৃষ্টি আকর্ষণ করে পালংখালী কলজের জন্য দো হাত সম্প্রসারিত করে সাহায্য সহযোগীতা করার আহান জানানা হয়।

পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, তার দীর্ঘদিনের আশা ছিল পালংখালীতে একটি কলেজ প্রতিষ্ঠা করবেন।

এব্যাপার রোহিঙ্গা আসার আগে তিনি বনবিভাগের একটি জায়গাও নির্ধারণ করেছিলন বলে সাংবাদিকদের জানিয়ে বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কলেজ প্রতিষ্টার ব্যাপারে আন্তরিকতা দেখে আমি বিস্মিত।

তিনি বলেন, তার বদান্যতা ও সাবেক সাংসদ বর্তমান সাংসদের অনুপ্ররণা আর্থিক ও সরকারি ভাবে সাহায্য সহযোগীতা পেলে এখান অবশ্যই একটি কলেজ নিমার্ণ করা সময়ের ব্যাপার মাত্র।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri