দুধ গরম খাবেন না ঠান্ডা ?

milk.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২ জানুয়ারী) :: দুধে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন, ভিটামিন ১২, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, ফসফরাস। যা হাড়-দাঁত মজবুত করে। শক্ত করে পেশি। শরীরে পুষ্টি জুগিয়ে সুস্থ রাখে ওষুধ ছাড়াই। তাই প্রত্যেকের নিয়মিত খাদ্য তালিকায় দুধ রাখা উচিত। কিন্তু দুধ গরম খাবেন না ঠান্ডা? কোনটা বেশি উপকারী শরীরের জন্য?

ঠান্ডা দুধ অম্বল ও ওজন কমায় সহজে। আবার ভালো ঘুম বা হজমশক্তি বাড়াতে গরম দুধের প্রয়োজন।  বিশেষজ্ঞদের মতে একেক জনের জন্য একেক রকম দুধ উপকারী। জেনে নিন ঠান্ডা নাকি গরম কোন দুধ আপনার জন্য উপকারী-

হজমশক্তি বাড়ায় গরম দুধ

দুধ বা দুধ থেকে তৈরি খাবার যাদের হজম হয় না তাদের খেতে হবে ঈষদুষ্ণ দুধ। ঠান্ডা দুধ তুলনায় ভারী। হজম করা কষ্ট। আর গরম দুধে ল্যাক্টোজের পরিমাণ কম থাকে। তাই এই দুধ সহজে হজম হয়।

ঘুম আনবে ঈষদুষ্ণ দুধ

রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস গরম দুধ মানেই এর মধ্যে থাকা সেরেটোনিন, মেলাটোনিনের গুণে মাথা থাকবে ঠান্ডা। যারা ঘুমের সমস্যায় ভোগেন তারা অবশ্যই ঘুমানোর আগে গরম দুধ খাবেন।

অম্বল কমায় ঠান্ডা দুধ

যারা সব সময় গ্যাস-অম্বলে ভোগেন তাদের জন্য ঠান্ডা দুধ ভীষণ উপকারী। এতে বুক-পেট জ্বালাও কমে। তাই খাবার পর রোজ আধা গ্লাস ঠান্ডা দুধ খান। ওষুধ ছাড়াই এই সমস্যার সমাধান পাবেন।

শরীরে পানির ঘাটতি মেটে ঠান্ডা দুধে

ঠান্ডা লাগার সমস্যা না থাকলে সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে ঠান্ডা দুধ খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে শরীরে পানির ঘাটতি মিটবে। তবে রাতে ভুলেও ঠান্ডা দুধ খাবেন না। এতে পেটের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

সূত্র: এনডিটিভি

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri