buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort

পেকুয়ায় একই পরিবারের ৫ জনকে কুপিয়ে জখম

received_557662798152288.jpeg

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া(৬ জানুয়ারী) :: কক্সবাজারের পেকুয়ায় স্থাপনা নির্মাণে বাধা দেয়ায় একই পরিবারের ৩ নারীসহ ৫ জনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়েছে।

৬ জানুয়ারী (সোমবার) বিকেল ৪ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিন মেহেরনামা মোরারপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন: ওই এলাকার মৃত বশির আহমদের মেয়ে জুলেখা বেগম (২৮), বোন জন্নাতুল মাওয়া (১৭), রমিজ আহমদের স্ত্রী পারভীন আক্তার (২২), ভাই শাহাব উদ্দিন (৩৭) ও নেজাম উদ্দিন (৩৫)। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এদের মধ্যে জুলেখা বেগম ও পারভীন আক্তারকে চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

আহতদের মাথা, হাতসহ সারা শরীরে কিরিচের মারাত্মক জখম রয়েছে। এদের মধ্যে পারভীন আক্তার ৩ মাসের অন্ত:স্বত্তা বলে হাসপাতাল সুত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জানা গেছে, সাড়ে ৩ শতক বসতভিটার জায়গা নিয়ে শাহাব উদ্দিন গং ও প্রতিবেশী মৃত আবুল কাসেমের ছেলে ছৈয়দ আলম গংদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। ওই জায়গার উপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ছৈয়দ আলম গংদের। ওই দিন ছৈয়দুল আলম লোকজন নিয়ে সাহাব উদ্দিনের বসতভিটায় হানা দেয়। তারা ভাড়াটে লোকজন নিয়ে জায়গা দখল নিতে জোরপূর্বক স্থাপনা নির্মাণকাজ শুরু করে। এ সময় শাহাব উদ্দিন গং বাধা দিলে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

আহত শাহাব উদ্দিন ও নেজাম উদ্দিন জানায়, প্রায় ২০ বছর আগে ৪ শতক জায়গা ক্রয় করে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছে। জায়গা ১ নং খাস খতিয়ানের। ওই জায়গার জবর দখলে নিতে চায় ছৈয়দ আলম ও তার ভাই নাছির উদ্দিন।

ওই দিন বিকেলে ছৈয়দ আলম দেশীয় অস্ত্র স্বস্ত্রসহ লোকজন নিয়ে বসতভিটায় হানা দেয়। তারা জোর করে স্থাপনা নির্মাণের চেষ্টা চালায়। আমরা বিষয়টি তাৎক্ষনিক ইউপি সদস্য রিদুয়ানুল হককে জানায়। মেম্বার গ্রাম পুলিশ দিয়ে স্থাপনা নির্মাণকাজ না করতে নিষেধ করে।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ছৈয়দ আলম, তার ছেলে বারেক মিয়া, তারেক উদ্দিন, জেয়াসমিন , শিফা , ভাতিজি শওকত আরা, ছৈয়দ আলমের ছৈনুয়ারা সহ ১০/১২ জনের উত্তেজিত লোকজন ধারালো কিরিচ, লোহার রড দিয়ে হামলা চালায়।

প্রত্যক্ষদর্শী মঈন উদ্দিন, আক্তার হোসেন, মনজুর আলম, মোজাম্মেল, বুলবুল আক্তার ও মোস্তফা বেগম জানায়, বসতভিটার জায়গা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। ওই দিন ছৈয়দ আলম গং জোর করে শাহাব উদ্দিন গংদের জায়গার দখলে নিতে চায়। তারা অন্ত:স্বত্তা মহিলাসহ ৫ জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। আমরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই।

পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল আজম জানায়, বিষয়টি আমাকে কেউ অবগত করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share this post

PinIt
izmir escort bursa escort Escort Bayan
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri