buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort

গোপন তথ্য ফাঁস ! করোনাভাইরাসে চীনে মৃত সাড়ে ২৪ হাজার

cvc-china.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৬ ফেব্রুয়ারী) :: গত এক মাসে চিনে হু হু করে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। আতঙ্কে কার্যত গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে চিনের ইউহান প্রদেশের বাসিন্দাদের। অন্যান্য দেশেও তাঁদের যেতে দেওয়া হচ্ছে না। এই ভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে এতটাই দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে যে তা কল্পনার বাইরে। জানা গিয়েছে, চিনের ঝেজিয়াং প্রদেশে দু’জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, যাদের শরীরে এই ভাইরাস প্রবেশ করেছে যথাক্রমে ৫০ সেকেন্ডে ও ১৫ সেকেন্ডে।

এদিকে নতুন এক গোপন তথ্য ফাঁসে জানা গেছে, চীনের নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৪ হাজার ৫৮৯ জন মারা গেছে। দেশটির শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি কোম্পানি ‘টেনসেন্ট’ -এর ওয়েবসাইটে এমন তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।এতে আরো এক লাখ ৫৪ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে উল্লেখ করা হয়েছে। অসতর্কতার কারণে এমন তথ্য প্রকাশ হয়ে থাকতে পারে বলে কেউ কেউ দাবি করছেন; তবে অনেকেই বলছেন, এটিই প্রকৃত সংখ্যা।

যদিও চীনের স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৬৩ জন।

সংবাদমাধ্যম ‘তাইওয়ান নিউজ’ তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, মনে হচ্ছে, অসতর্কভাবে এমন তথ্য প্রকাশ করেছে টেনসেন্ট। প্রকাশিত সংখ্যা এ  ভাইরাসে মৃত্যু ও সংক্রমণের সরকারি পরিসংখ্যানের চেয়ে অনেক বেশি।

সম্প্রতি টেনসেন্ট তাদের ওয়েবসাইটে ‘এপিডেমিক সিচুয়েশন ট্র্যাকার’ নামে একটি পেজ খোলে। এতে  ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ প্রকাশিত পর্যন্ত চীনে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের পরিংখ্যান তুলে ধরা হয়।

তাদের তথ্য অনুযায়ি, করোনাভাইরাসে সন্দেহভাজন আক্রান্ত হিসেবে চীনে ৭৯ হাজার ৮০৮ জন শনাক্ত করা হয়েছে যা সরকারি হিসেবের চেয়ে  ৪ গুণ বেশি।

টেনসেন্টর দাবি, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন মাত্র ২৬৯ জন। আশ্চর্যজনকভাবে এখানে মৃতের সংখ্যা উল্লেখ করা হয় ২৪ হাজার ৫৮৯।

প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাস নিয়ে চীন সরকারের হিসেব দেওয়ার পর পরই টেনসেন্ট করোনাভাইরাস নিয়ে আক্রান্ত বা মৃতের সংখ্যা প্রতিনিয়ত তাদের ওয়েবপেইজ আপডেট করছে।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, নেটিজেনরা লক্ষ্য করেছেন যে, সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা পর এ পর্যন্ত তিনবার করোনাভাইরাস নিয়ে তারা উচ্চতর পরিসংখ্যানের পোস্ট দিয়েছে।

কারও কারও ধারণা অভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণে এমনটা করা হচ্ছে, কেউ আবার মনে করছেন প্রকৃত পরিস্থিতি তুলে ধরার জন্য এমন তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে।

‘টেনসেন্টে’র পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত অবশ্য কেউ এই প্রতিবেদন নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও মন্তব্য করেননি।

এদিকে উহানের একাধিক সূত্রে জানা গেছে, অনেক করোনভাইরাস রোগী চিকিৎসা নিতে পারছেন না । এতে তাদের হাসপাতালের বাইরে মারা যাওয়ার আশঙ্কা বাড়ছে।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, করোনাভাইরাস নিয়ে চীন যে তথ্য প্রকাশ করছে তার মধ্যে লুকোচুরি রয়েছে।

সিসিএন জানিয়েছে, যদি ‘টেনসেন্টে’র পরিসংখ্যান সঠিক হয় তাহলে করোনভাইরাসে মৃত্যুর হার হবে ১৬ । এর আগে সার্স রোগে চীনে এ মৃত্যুর হার ছিল ৬ দশমিক ৬ শতাংশ জানিয়েছে।

বেইজিংয়ের সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক বিষয় নিয়ে কাজ করা স্বাধীন ম্যাগাজিন কাইজিংও দাবি করেছে, চীনের ক্ষমতাশীন কমিউনিস্ট পার্টি (সিসিপি) করোনভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মাত্রা কমিয়ে বলছে।

কাইজিংয়ের নিবন্ধে, সেন্সরশীপের কারণে উহান কর্মকর্তারা কীভাবে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের তথ্য গোপন করছেন সে সম্পর্কে বিশদ লেখা প্রকাশিত হয়েছে।

সূত্র : আউটলুকইন্ডিয়া

Share this post

PinIt
izmir escort bursa escort Escort Bayan
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri