buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort rize escort sinop escort usak escort trabzon escort

করোনাভাইরাসে নিউইয়র্কে ২ ও ইতালিতে ১ বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর(ভিডিও সহ)

cr.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২০ মার্চ) :: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিউইয়র্ক ও ইতালিতে ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। তারা সকাই পুরুষ।নিউইয়র্কের এস্টোরিয়া এলাকার বাসিন্দা ষাটোর্ধ্ব মোতাহার হোসেন নামে একজন বৃহস্পতিবার রাতে মারা যান। হার্টের সমস্যাসহ নানা রোগে ভুগছিলেন তিনি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে কুইন্সের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

মৃত্যূবরণ করা অন্যজন কুইন্সের বাঙালি অধ্যুষিত উডসাইডের বাসিন্দা আলী । তার সম্পর্কে তেমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তার বয়স ষাটের নিচে। তবে তিনিও জটিল রোগে ভুগছিলেন বলে জানা গেছে। তার পরিবারের পরিচিত একজন জানান, মৃতের পরিবার জানাতে চায় না যে, তিনি করোনায় মারা গেছেন। কারণ তাতে তার স্বাভাবিক জানাজা ব্যাহত হতে পারে বলে তারা আশঙ্কা করছেন।

এছাড়া ভার্জিনিয়া স্টেটেও এক বাংলাদেশি নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন বলে অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে। তার সম্পর্কে বিস্তারিত আর জানা যায়নি। এছাড়া নিউইয়র্কে এক পরিবারের চারজন (স্বামী, তার স্ত্রী ও দুই ছেলে) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তারা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

করোনা মোকাবিলায় নিউইয়র্ক লকডাউন

করোনা মোকাবিলায় নিউইয়র্ক লকডাউন, বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা বিপাকে, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি মুহুর্তে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা

Posted by Bangla Channel on Saturday, March 21, 2020

এদিকে, করোনাভাইরাস এখন নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কমিউনিটিতে রীতিমতো আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। অসংখ্য বাংলাদেশির এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর লোকমুখে শোনা গেলেও ঠিক কতজন বাংলাদেশি আক্রান্ত হয়েছেন, তার সঠিক পরিসংখ্যান পাওয়া যাচ্ছে না। এর কারণ হচ্ছে যারা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের পরিবার বিষয়টি লুকিয়ে রাখতে চাচ্ছে। তারা জানতে দিচ্ছেন না, তাদের পরিবারের কেউ এতে আক্রান্ত হয়েছেন। আশপাশের প্রতিবেশীদের কাছ থেকে কোনো কোনো ব্যক্তির আক্রান্ত হওয়ার খবর জানা যাচ্ছে।

জানা গেছে, কুইন্সের বাঙালি অধ্যুষিত উডসাইডে একটি পরিবারের চারজনকে স্বাস্থ্যকর্মীরা উঠিয়ে নিয়ে গেছে তাদের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়ার কারণে।

একই রকম ঘটনা ঘটেছে কুইন্সের সাটফিনেও। এখানেও একই পরিবারের তিনজনকে স্বাস্থ্যকর্মীরা উঠিয়ে নিয়ে গেছেন এবং পরিজনকে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে নিষেধ করে গেছেন। উডসাইডে আরেক বাংলাদেশি নারীর দেহেও করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

 ইতালিতে এক বাংলাদেশীর মৃত্যু

নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতালিতে এক প্রবাসী বাংলা‌দে‌শীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৮টায় মিলানের নিগোয়ারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৫৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি।

জানা যায়, ১৫ দিন আগে অসুস্থ হয়ে ইতালির মিলান শহরের নিগোয়ারা হাসপাতালে ভর্তি হন গোলাম মাওলা নামে ওই ব্যক্তি। সেখানে তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। হাসপাতালে এ ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করার পর সেখানেই মৃতুবরণ করেন তিনি।

স্বজনরা জানিয়েছেন, তার স্ত্রীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এক ছেলে ও এক মেয়েসহ নিহত ব্যক্তির পুরো পরিবারকে হোমকোয়ারেন্টাইন রাখা হয়েছে।

ওই বাংলাদেশীর মরদেহ মিলানের নিগোয়ারা হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। মরদেহ স্বজনদের কাছে কীভাবে, কখন হস্তান্তর করা হবে সে বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী। ইতালির বাণিজ্যিক শহর মিলানের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসকষ্টসহ নানাধরনের শারীরিক অসুস্থ্যতায় ভুগছিলেন ওই ব্যক্তি।

Share this post

PinIt
izmir escort bursa escort Escort Bayan
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri