buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort rize escort sinop escort usak escort trabzon escort

করোনা এখন বিশ্বের ২০০টি দেশে : মৃত ২৫ হাজার ছাড়াল,আক্রান্তের শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র

usa-corona-kill-80k-people-pic.jpg

Novel coronavirus outbreak in USA concept. Nurse hand holding blood test tube with label 2019-nCoV over flag of the United States of America. Coronavirus diagnosis, laboratory Testing for 2019-nCoV.

কক্সবাংলা ডটকম(২৭ মার্চ) :: বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মহামারিতে মৃতের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়িয়েছে। সিএনএন এর তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় ২৫ হাজার ২৫১ জন মারা গেছেন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৫০২ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১ লাখ ২৪ হাজার ৩৪৯ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। উৎপত্তিস্থল চীনে ৮০ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমে গেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। চীনের বাইরে করোনা ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে ১১ মার্চ পৃথিবীব্যাপী মহামারি ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, আক্রান্তের সংখ্যার দিক দিয়ে চীনকে ছাড়িয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। সেদেশে ৯১ হাজার ২৫৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছে ১৩৫৩ জন মানুষ। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১৮৬৮ জন। চীনে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৮১ হাজার ৩৪০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৯২ জনের। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৭৪ হাজার ৫৮৮ জন। আক্রান্তের সংখ্যার দিক দিয়ে তৃতীয় অবস্থানে থাকলেও করোনায় সবচেয়ে বেশি প্রানহানি হয়েছে ইতালিতে। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজারের বেশি মানুষের। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৫৮৯। সুস্থ হয়েছে ১০ হাজার ৩৬১ জন। স্পেনে আক্রান্ত হয়েছে ৫৭ হাজার ৭৮৬ জন। প্রাণ হারিয়েছে ৪,৩৬৫ জন।

বাংলাদেশ সময় শুক্রবার (২৭ মার্চ) ভোর ৬টার পর থেকে সকাল সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত সারাবিশ্বে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৫৪ জন। এর মধ্যে কমপক্ষে ১৫৯ জন যুক্তরাষ্ট্রের, চীনের ৫৫ জন, দক্ষিণ কোরিয়ার ৯১, ভারতের ৬ জন, মেক্সিকোর ১১০ জন, কাজাখস্তানের ৮ জন, ক্যামেরুনের ১৩ জন, প্যারাগুয়ের ১১ জন ও ভুটানের ১ জন।

বিবিসি বলছে, চীনকে ছাড়িয়ে করোনার কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠছে বিশ্ব পরাশক্তি যুক্তরাষ্ট্র। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ২৬৬ জন মানুষ। আর আক্রান্ত হয়েছে ১৭ হাজার ৫৭ জন। মোট আক্রান্ত ৮৫ হাজার ৪৮৯ জন, যা করোনা ভাইরাসের উতপত্তিস্থল চীনের চেয়ে বেশি। চীনে মোট আক্রান্ত হয়ে ৮১ হাজার ৩৪০ জন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যে দেখা যায়, চীনের চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর হার কম। যুক্তরাষ্ট্রে এখন পযন্ত ১ হাজার ২৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। সংকটাপন্ন রয়েছে ২ হাজার ১২২ জন। ৮২ হাজার  ৩২৪ জন চিকিৎসাধীন অবস্থা আছে। সুস্থ হয়ে ফিরেছে মাত্র ১ হাজার ৮৬৮ জন। সেদিক থেকে চীন ভালো অবস্থানে আছে। দেশটিতে ৮১ হাজারের মধ্যে ৭৪ হাজারই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস-প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেন, দেশের ৫০টি স্টেটেই করোনা রোগী পাওয়া গেছে। আমরা সব স্টেটে মোট ৫ লাখ ৫২ হাজার মানুষকে পরীক্ষা করেছি। দ্রুততার সঙ্গে পরীক্ষা চালাচ্ছি। আশা করি আমরা করোনা মোকাবিলা করতে পারবো।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প বলেছেন, আমরা যে হারে দ্রুততার সঙ্গে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছি তা বিশাল কিছু।

যুক্তরাষ্ট্র আক্রান্তের দিক থেকে চীনকে ছাড়িয়ে গেছে এমন তথ্যের কথা শোনার পর ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, বেইজিং যে পরিসংখ্যান দিয়েছে, সেটির সত্যতা আপনারা জানেন না।

এদিকে নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আগামী চার মাসে মারা যেতে পারে ৮১ হাজারেরও বেশি মানুষ।

ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটন স্কুল অব মেডিসিন এক গবেষণায় এই আশঙ্কার বিষয়টি জানায়। জুন পর্যন্ত কভিড-১৯ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কমে আসার সম্ভাবনা দেখছেন না গবেষকেরা। কিছু রাজ্যে বেশিমাত্রায় প্রাদুর্ভাব ঘটায় এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে জাতীয়ভাবে করোনা রোগীর সংখ্যা সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে যেতে পারে।

জুলাই মাসের শেষের দিকে পর্যন্ত আক্রান্ত মানুষের মৃত্যু হতে পারে। তবে পুরো মাসে সেটি ধীরে ধীরে কমে আসবে।

এর আগে নভেল করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে ২২ লাখ মানুষ মারা যেতে পারে বলে একটি গবেষণায় শঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল। ইতালিতে সংক্রমণের তথ্য অনুসারে যুক্তরাষ্ট্রে এই গবেষণা চালিয়েছিল লন্ডনের ইমপিরিয়াল কলেজের গাণিতিক জীববিজ্ঞানের অধ্যাপক নিল ফার্গুসন ও তার দল।

Share this post

PinIt
izmir escort bursa escort Escort Bayan
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri