buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort rize escort sinop escort usak escort trabzon escort

করোনা : কক্সবাজারে ২৪ ঘন্টায় সদরের ৬৩ জন সহ ৮ উপজেলায় শনাক্ত আরও ৮৯জন

corona-report-coxsbazar-24-june.jpg

কক্সবাংলা রিপোট(২৪ জুন) :: করোনার রেড জোন ঘোষনার পর থেকে কক্সবাজার জেলায় করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। এ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই হাজার ছুঁই ছুঁই করছে। এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু ঘটেছে ৩৫ জনের। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় কোনো প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও জেলায় নতুন করে করোনার পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন আরও ৮৯ জন।

বুধবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, জেলায় এ পর্যন্ত মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা ২ হাজার ২৮৭ জন। এরমধ্যে মারা গেছেন ৩৫ জন। এছাড়া করোনাকে জয় করে বাড়ি ফিরেছেন ৭৬১ জন।

বুধবার রাতে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘন্টায় দুটি পিসিআর ল্যাবে ৫৮৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়। এর মধ্যে ১০১টি নমুনার ফল আসে পজিটিভ।যার মধ্যে ৯৮টিই নতুন নমুনা। ৩টি নমুনা ফলোআ। আর জেলায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১ রোহিঙ্গা সহ ৮৯ জন।

আক্রান্তদের মধ্যে সদরের সর্বাধিক সদরের-৬৩ জন, টেকনাফের-১ জন,কুতুবদিয়ার-৭ জন,চকরিয়ায়-৫ জন,রামুতে-৫জন,মহেশখালীতে-১জন,পেকুয়ায়-২জন,উখিয়ায়-৪জন এবং রোহিঙ্গা ১জন । জেলার বাইরে বান্দরবানের ৭ জন এবং সাতকানিয়ার ২জন নতুন পজিটিভ অছেন।বাকী ৪৮৫টি নমুনা নেগেটিভ আসে।

এনিয়ে জেলায় ৮৪তম দিনে করোনা রোগীর সংখ্যা দাড়াল মোট ২হাজার ২৮৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৬১ জন।আর মারা গেছেন ৫ রোহিঙ্গা সহ ৩৫ জন। এছাড়া ৪৬ রোহিঙ্গা করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে,২৪জুন পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনার হটস্পট সদর উপজেলায় আক্রান্ত এবং মৃত্যূ সবচেয়ে বেশি। এখানে মোট আক্রান্ত‘র সংখ্যা ১০৫৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১৯৮ জন। এছাড়াও দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা চকরিয়া উপজেলায় ৩১১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১৮৮ জন। আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে উখিয়া।এ উপজেলায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৩০৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১১৭জন।

এর পরে রয়েছে টেকনাফে পর্যন্ত আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ২০০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬৮ জন,রামুতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১৮৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬১জন,পেকুয়ায় পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৯৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬৬জন,মহেশখালীতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৯০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫৬ জন এবং কুতুবদিয়ায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৪২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭ জন।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে আরও জানা গেছে, ২৪ জুন রাত ৯টা পর্যন্ত গত তিন মাসে কক্সবাজার জেলায় হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে ৭ হাজার ৯৪ জনকে এবং কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে ৪ হাজার ৮১১ জনকে। বর্তমানে কক্সবাজারে হোম কোয়ারেন্টিনে অবস্থান করছেন ৬৪২ জন এবং হাসপাতালে কোয়ারেন্টিনরত আছেন ১৬৪ জন।

২৩ জুন পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় এ পর্যন্ত করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৫ জনের প্রাণ।এর মধ্যে সদরে ১৭ জন,চকরিয়ায় ৬জন,উখিয়ায়-৬ জন(রোহিঙ্গা-৫ ও স্থানীয়-১),টেকনাফে-৩ জন,মহেশখালীর-১জন,কুতুবদিয়ায়-১জন, রামুতে ১ জন এবং পেকুয়ায় এখনো কেউ মারা যায়নি।

কক্সবাজারস্থ শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন (আরআরআরসি) কার্যালয়ের প্রধান স্বাস্থ্য সমন্বয়কারী ডা.আবু তোহা জানিয়েছেন,এ পর্যন্ত ৪৭ রোহিঙ্গা করোনা পজিটিভ হয়েছেন এবং ৪ জন সুস্থ হয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছেন ৫জন। আর রোহিঙ্গা আইসোলেশন ইউনিটে ৩২ জন ভর্তি রয়েছেন।

Share this post

PinIt
izmir escort bursa escort Escort Bayan
scroll to top
en English Version bn Bangla Version
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri